স্যাটায়ার

প্রকৃতির কাঠগড়ায় সৃষ্টির সেরা জীব মানুষ

এই শহরে একদিন আমার নিঃশ্বাস বিলীন হয়ে যাবে,এখানে আমাদের কোন অস্তিত্ব থাকবে না,এই শহরে একদিন বাঁদুরের রাজত্ব হবে, বড় বড় দালানগুলো সব ভুতুড়ে হয়ে যাবে। এই সুন্দর গ্রাম বনে পরিণত হয়ে হাজার বছর ধরে কালের স্বাক্ষী হয়ে থেকে যাবে,এখানে আমাদের কোন অস্তিত্ব থাকবে না, কারন আমরা হারিয়েছি মানবিকতা, আমরা হারিয়েছি ভ্রাতৃত্ববোধ,এখানে আবার হরিণের শাবক লাফিয়ে বেড়াবে,ফড়িংগুলো এদিক-ওদিক উড়ে এঘাস থেকে ওঘাসের ডগায় গিয়ে বসবে,এখানে রাত নামলে আবার শেয়াল ডাকবে,সমস্ত পক্ষিকুল,প্রাণীকুলের …

আরও পড়ুন

অপ-তসলিমা এবং তার অপ-সাহিত্য

আমি আতঙ্কের সঙ্গে লক্ষ্য করেছি, আমার অনেক বন্ধু, যারা নারীর পক্ষে লিখছেন বলে মনে করছেন, তারা অনেকেই একটা বিশেষ ছকের মধ্যে আবর্তিত হচ্ছেন। সেই ছকটা তসলিমার তৈরি। ছকের বৃত্তে বন্দি হয়ে তারা প্রায়শঃই অশ্লীল শব্দে, বিকৃত বাংলায়, অশুদ্ধ বাক্যে তাদের চিন্তার দৈণ্যদশা প্রকাশ করে যাচ্ছেন। যা তসলিমা এবং তার অপসাহিত্যের প্রধান বৈশিষ্ট্য। আমি বিষয়টাকে নারী তথা আমাদের সুস্থতার জন্য বিপদজনক মনে করেছি। আমি কিছুদিন এদের একটু বাজিয়ে দেখেছি। ফলাফল? ভয়াবহ! …

আরও পড়ুন

ইসলামপূর্ব আরবে নারীর অবস্থা

ইসলামে বলা হয় ইসলামপূর্ব আরবে নারীর অবস্থা শোচনীয় ছিলো। ইসলাম উদ্ধার করে তাদের। সব ধর্ম ব্যবস্থাই তার পূর্বের ধর্মের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করে। ঐতিহাসিক ভাবে সাধারণত সেটি সত্যি হয় না। আরব নারীদের ইতিহাসে জানা যায়- ইসলামপূর্ব আরবে অনেক বেশি স্বাধীনতা ও অধিকার ছিলো নারীর। তারা অবরোধে থাকতো না, তারা সব ধরণের সামাজিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিতো। তাদের প্রাধান্যও ছিলো সমাজে। ইসলামপূর্ব আরবে কিংবা মোহাম্মদ যখন সবে তার ধর্ম প্রচার শুরু করছেন তখনও …

আরও পড়ুন

ভাবনার এরোপ্লেন- ১

অন্যান্য ধর্মের প্রভাবে বিশেষ করে বর্বরতম ধর্ম ইসলামের শ্রেষ্ঠত্বের দাবিতে অর্ধমৃত ভাইরাস হিন্দুরাও এক ভয়াবহ মৌলবাদি দানবে রূপান্তরিত হয়ে যাচ্ছে। মৌলবাদের জবাবে মৌলবাদ, ধর্মান্ধতার বদলে ধর্মান্ধতা, খেলাফতের জবাবে রামরাজ্য আমাদেরকে আরো এক কুৎসিত পরিস্থিতির দিকে ঠেলে দিচ্ছে। খুব বেশি দূরে নয় শীঘ্রই হয়তো হিন্দু ধর্মান্ধদের দৌরাত্বে কাপঁবে বিশ্ব মানবতা ; ইসলামের মতোই। হয়তো আরো জমে উঠবে এই দুই কুকুরের লড়াই; কোন এক কাল্পনিক হাড়ের দখলের চেষ্টায়। আশ্চর্য হলেও সত্য, আমাদের …

আরও পড়ুন

নারীর যোগ্যতা ও পুরুষের ভাবনা

শারীরিক গঠন একটি মানুষের যোগ্যতার মাপকাঠি হতে পারে না। কিন্তু শারীরিক সৌন্দর্যকে একটি যোগ্যতা বলেই ধরা হয় মেয়েদের ক্ষেত্রে। একটি মেয়ে কালো না ফর্সা, বেঁটে না লম্বা, মাথায় চুল আছে কি নেই, নাক খাড়া না বোঁচা এগুলো তার যোগ্যতার(?) মধ্যে পড়ে। মেয়ের গায়ের রঙ কালো হলে পরিবারের ঘুম হারাম হয়ে যায় তাকে যে কোনো উপায়ে ফর্সা বানানোর চেষ্টায়। মেয়েটি যতই উচ্চ শিক্ষিত হোক না কেন, সেটিকে তার যোগ্যতা হিসেবে দেখতে …

আরও পড়ুন

পরকীয়া ও পুরুষ

পরকীয়া পুরুষ-নারী উভয়্ই করে। কিন্তু পুরুষের পরকীয়ার সংখ্যা অনেকটা বেশি। নারী মূলত হতাশা, অপ্রাপ্তি, মানসিক টানাপোড়েন, অপূর্ণ চাহিদা, না পাওয়া ইত্যাদি বিভিন্ন কারণে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। পুরুষ পরকীয়া করে তার বহুগামী মানসিকতা থেকে। শত শত বছর পূর্ব হতেই পুরুষ পরকীয়া করে। সম্ভবত পরকীয়ার জিন রয়েছে পুরুষের শরীরে। পুরুষ এক নারীতে সন্তুষ্ট থাকে না। পুরুষের পরকীয়ার ব্যাপারটি অনেকটা স্বাভাবিক ভাবেই নেওয়া হয়। “পুরুষ-মানুষ ওরকম একটু-আধটু করবেই!” কিন্তু নারী করলেই মহাভারত যে …

আরও পড়ুন

ধর্ম নারী মুক্তির অন্তরায়

বাংলাদেশে বহুল প্রচলিত ধর্মের সংখ্য চারটি। ইসলাম, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান। ধর্ম এমন এক ব্যাবস্থা যা মানুষের চলমান জীবনে আইনের মতো শাসন করে থাকে, কিন্তু তা বরাবরই আধ্যাত্মিক। ধর্ম শুধুই পরকাল নির্ভর, বলতে গেলে পরকালের স্বর্গ – নরকের ভয় দেখিয়ে মানুষকে শাসন করে চলেছে বর্তমান ধর্মীয় গুরুরা। কেউ আমার সামনে কখনো ধর্ম কথাটি উচ্চারণ করলেই আমার ছোটবেলার কথা মনে পড়ে যায়। যখন আমি তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ি তখন বেশ দুষ্টু ছিলাম, বাড়াবাড়ি …

আরও পড়ুন

প্রেম এবং ভালোবাসা , মন নাকি দেহ ?

দেহ এবং মন নিয়েই প্রেম এবং ভালোবাসার পূর্ণতা বলে আমরা সবাই জানি এবং এটাই চরম সত্য বলে মনে করি । আসলে কি তাই? আমার মতে প্রেম কিছু নয়, শুধুমাত্র বয়সের এবং প্রাকৃতিক নিয়মের ক্রিয়াই প্রেম অথবা ভালোবাসা । খুব ঠান্ডা মাথায় আমার লেখার উপর উত্তেজিত না হয়ে চিন্তা করে দেখুন, আমি যদি বস্তুবাদী হই আমার কাছে তো মনের সংঙ্গাটা ভাবের একটা অংশ মনে করা উচিৎ এবং দেহকে প্রাধান্য দেওয়া প্রয়োজন …

আরও পড়ুন

পুরুষতান্ত্রিক মানসিকতা ও জিরো ফিগার

আজকাল জিরো ফিগার খুবই জনপ্রিয় একটি শব্দ। অল্প বয়সি থেকে শুরু করে মধ্য বয়সি নারীরাও জিরো ফিগার হতে চান। শরীরে বিন্দু মাত্র মেদ থাকা চলবে না। শরীর হতে হবে ছিপছিপে পাতলা। নায়িকারা হরদম জিরো ফিগার হচ্ছেন। জিরো ফিগার না হলে নারী সৌন্দর্যের মধ্যে পড়বেনা। শরীরে সামান্যতম মেদ জমলে সব সৌন্দর্য নষ্ট হয় যাবে। নায়িকা জিারো ফিগার না হলে সিনেমা চলবেনা। আর জিরো ফিগার নায়িকা দেখে শরীরে একটু চর্বি জমা স্ত্রী …

আরও পড়ুন
error: এই ব্লগের লেখা কপি করা যাবে না