উথোয়াইনু মারমা

I'm student.

ডাক

মা, ডাক এসেছে আবার! আমাকে যেতে হবে মা! কিসের ডাক, বাবা? কি হয়েছে আমাদের দেশের? আমাদের অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন চলছে। আমাদের আত্ম-নিয়ন্ত্রণাধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন চলছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি’র যথাযথ বাস্তবায়নের আন্দোলন চলছে, মা। আমাকেও যেতে হবে। আন্দোলনের যোগ দিতে হবে। মা, তোমার মেয়ে – তুমাচিং, উম্রাচিং, নাউবাই, সুজাতা, সবিতা তাদের …

বিস্তারিত পড়ুন

এখনও সব শেষ নই

এখনও সব শেষ নই, আবারো পাহাড়ে একদিন জন্ম দিবে – জুম্ম জাতীয়তাবাদী দর্শন ও আদর্শিক বিপ্লবী নেতা। পাহাড়ে আবারো জন্ম দিবে – জুম্মজাতির অস্তিত্ব ও জন্মভূমি টিকিয়ে রাখার বৈপ্লবিক সংগ্রাম। পাহাড়ে এখনও জুম্ম জাতীয়তাবাদী দর্শন ও আর্দশের চিহ্ন শেষ হয়ে যায়নি। পাহাড়ী আদিবাসীরা মহান নেতা এমএন লারমা প্রদর্শিত পথ, নীতি …

বিস্তারিত পড়ুন

কেউ চাইলে কি রাজনীতির বাইরে থাকা যায়?

আপনি রাজনীতি পছন্দ করেন না। তাতে কারো সমস্যা নেই। সেটা আপনার সিদ্ধান্ত গ্রহণের অধিকার আছে। আপনি রাজনীতি করবেন নাকি করবেন না – নিজের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করে। তবে আপনি চাইলেও রাজনীতি বাইরের থাকতে পারবেন না। আমরা যারা নিজদেরকে নিরপেক্ষ বলে দাবি করে থাকি। আসলে চাইলে কি নিরপেক্ষ থাকায় যায় তথা …

বিস্তারিত পড়ুন

স্বপ্ন

আমি স্বপ্ন দেখি, দামাল ছেলেরা জুম্ম জাতির অস্তিত্ব ও জন্মভূমি রক্ষার আন্দোলনে পাহাড় কেঁপে উঠবে, আত্ম-বলিদানে রক্ষা করবে পাহাড় ও জাতির অস্তিত্ব। জুম্ম জাতির তোমরা এগিয়ে চল, দামাল ছেলেরা উঠবে জেগে, ভয় কিসের আর বল! পার্বত্য চট্টগ্রামে জুম্মদের একদিন আত্মনিয়ন্ত্রণাধিকার প্রতিষ্ঠার হবে। আমি স্বপ্ন দেখি, ধুধুক ছড়া থেকে ঘুমধুম পর্যন্ত …

বিস্তারিত পড়ুন

অবরুদ্ধ পাহাড়

অবরুদ্ধ পাহাড়, বাংলাদেশ উপনিবেশ শাসন-শোষণের। ‘অপারেশন উত্তোরণ’ নামে সামরিক শাসন কায়েমের। ‘শান্তি-সম্প্রীতি-উন্নতি’ তথা ‘অপারেশন শান্তকরণ’ নীতি প্রয়োগের। অবরুদ্ধ পাহাড়, রাষ্ট্রীয় কূটনীতি তথা রাজনীতিতে। উন্নয়নের রাজনীতি নামক লুটপাট রাজনীতিতে। রাষ্ট্র ‘কালচারাল জেনোসাইড তথা এথনোসাইড’ নীতি প্রয়োগের। রাষ্ট্র পাহাড়ে ‘ডেভেলপমেন্ট জেনোসাইড’ তত্ত্ব প্রয়োগের। অবরুদ্ধ পাহাড়, রাষ্ট্র ‘ভাগ কর, শাসন কর’ নীতি প্রয়োগের। …

বিস্তারিত পড়ুন

পাহাড়ের প্রশ্ন, ধর্ষকেরও জাত আছে, ধর্ম আছে

বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জন করার পর থেকে পার্বত্যাঞ্চলের বিভিন্ন পদ্ধতিতে, বিভিন্ন কৌশলের পাহাড়ীদের ওপর শোষণ, শাসন, নির্যাতন, নিপীড়ন করে আসছে। বাংলাদেশ এখন পাকি শাসনের কায়দা শাসন, শোষণ করছে পার্বত্য চট্টগ্রামে। পার্বত্য চট্টগ্রাম হচ্ছে বাংলাদেশ উপনিবেশ শাসন। বাংলাদেশ নিজকে গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র হিসাবে দাবি করলেও পার্বত্য চট্টগ্রামে “অপারেশন উত্তোলণ” নামক জারি করে সেনাশাসন …

বিস্তারিত পড়ুন

আন্দোলন করুন, সেনাশাসন প্রত্যাহারের জন্য

১. পার্বত্য চট্টগ্রামে সেনাবাহিনী সমস্যা নাকি সেনাশাসন অঘোষিতভাবে কায়েম করে রাখার সমস্যা – এই দিকে প্রথম মনোযোগ দিতে হবে। তাহলে দুই, একবার প্রতিবাদ মিছিল আন্দোলন করে কোন লাভ হবে না। সেনাবাহিনী এবং সেনাশাসন দু’য়ের পার্থক্য আছে। সেনাবাহিনী নাকি সেনাশাসন সমস্যা কোনটি পার্বত্য চট্টগ্রামে সমস্যার কারণ ? সাধারণ চোখে তথা সহজ-সরল …

বিস্তারিত পড়ুন

দ্বন্দ্বের প্রধান দিক: অস্তিত্ব রক্ষার এবং অস্তিত্ব ধ্বংসের ষড়যন্ত্র

১. প্রথমত, আমরা বাঙালি না বাংলাদেশী? বাংলাদেশ স্বাধীনতার লাভের পর ১৯৭২ সালের সংবিধান প্রণয়ন প্রাক্কালে সংবিধানে সাংবিধানিকভাবে বাঙালিকরণ করা হয়েছে। অথচ বাংলাদেশের বাঙালি জাতির ব্যতীত বাংলাদেশের অপরাপর জাতিরও বসবাসরত রয়েছে তথা ম্রো, খেয়াং, খুমি, চাকমা, মারমা, ত্রিপুরা, পাংখোয়া ইত্যাদি। সাংবিধানিকভাবে বাঙালিকরণ মানে বাঙালির জ্যাতভিমান, উগ্রজাতীয়তাবাদ এবং সাম্প্রদায়িক বহিঃপ্রকাশ। এর বিরুদ্ধে …

বিস্তারিত পড়ুন

আমাদের অস্তিত্ব টিকে থাকবে কি, থাকবে না?

আমাদের জীবনধারণ পদ্ধতি বা জীবিকানির্বাহ পদ্ধতি এখনো ঐতিহ্যবাহী প্রাচীন পদ্ধতি জুম চাষ উৎপাদনে ওপর নির্ভর অধিকাংশ। আর কিছু কিছু মানুষ ছোটখাট ফলমূল বাগান করে এবং ছোটখাট ফলমূলাদি আর শাক-সব্জি ব্যবসায় করে বেঁচে থাকার চেষ্টা করে। আর কিছু কিছু মানুষ কৃষিকাজ করে বেঁচে থাকার সংগ্রাম করে চলছে। কিছু কিছু মানুষ চাকরি-বাকরি …

বিস্তারিত পড়ুন

অন্যায়ের প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য ছাত্র সমাজ সংগঠিত হোন

পার্বত্য চট্টগ্রামের ইতিহাস অন্যায়-অবিচার-শোষন-বঞ্চনার ইতিহাস। পার্বত্য চট্টগ্রামের আদিবাসী জাতিসত্তাসমূহের ওপর ৪৭ এ ভারতবর্ষ দেশ ভাগের পর পাকিস্তানি শাসকরা শোষন-বঞ্চনা-নির্যাতন চালিয়েছিল এবং ৭১ এ বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভের পর শুরু হয় উগ্র বাঙালি জাতীয়তাবাদের শোষন-বঞ্চনা-নির্যাতন এবং যা এখনো চলমান। পার্বত্য চট্টগ্রামের ইতিহাসের পাতা খুললে দেখতে পাবেন, পাহাড়ী জনগণের ওপর গণহত্যা, নারী ধর্ষণ, …

বিস্তারিত পড়ুন