অর্থনীতি

মিসেস জিয়ার মুক্তি ও আমাদের অর্থনীতিতে করোনার প্রভাব

আজ ২৪ মার্চ সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুপারিশে মুক্তির সিদ্ধান্ত হয়েছে৷ মুক্তির শর্ত দুইটা, ১.বাসায় থাকতে হবে ২. বিদেশ ভ্রমণ করতে পারবেন না (শর্তগুলো খেয়াল করুন) মিসেস জিয়াকে মুক্তি দেওয়া হয় ফৌজদারির কার্যবিধির ৪০১ (১) ধারায়। এই ধারায় ক্রিমিনাল কেসের উপর সরকারের বিশেষ ক্ষমতা আছে৷ মিসেস জিয়াকে মুক্তির সিদ্ধান্ত হয়েছিল গত ফেব্রুয়ারিতে। গত ১১ ফেব্রুয়ারি ভারতে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত কেনেথ জুস্ট বাংলাদেশ সফর …

আরও পড়ুন

কৃষি এবং কৃষককে বাঁচাতে হবে

সেদিন কলেজের দু’বন্ধুর সাথে আচমকা দেখা হয়ে গেলো। অনেকদিন পর দেখা, পুরোনো বন্ধু, অনেক কথা জমে আছে এবং তা বলতে হবে, শুরু হলো আড্ডা। কথা বলতে বলতে কথা গিয়ে ঠেকলো আমার বাবার পেশা নিয়ে । হয়তো আমার চাল-চলন, প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা এবং সবকিছু মিলে দীর্ঘদিন তাদের আমার বাবার পেশা নিয়ে খটকা ছিলো। এরমধ্যেই একজন জিজ্ঞেস করে বসলো আমার বাবা কি করে ? মানে ওয়াট ইজ মাই ফাদার প্রফেশন ! যেমন প্রশ্নের …

আরও পড়ুন

বাংলাদেশের ই-কমার্সের ইতিহাস

১৯৯৭ সালে ই-কমার্সের যাত্রা শুরু হয়। ১৯৭১ মতান্তরে ১৯৭২ সালে ARPANET ব্যবহার করে মারিজুয়ানা বিক্রি হয় স্ট্যানফোর্ড আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্ট ল্যাব এর স্টুডেন্টদের সাথে ম্যাসাচুসেট ইন্সটিটিউট অফ টেকনলজির স্টুডেন্টদের মধ্যে। ১৯৭৯ সালে মাইকেল আল্ড্রিচ প্রথম অনলাইন শপিং এর ডেমো দেখান।শুররু দিকের ই-কমার্স আজকের মত ছিল না তখন ব্যবসায়ীরা নিজেদের সুবিধার্থে অনলাইনে কেনাকাটা করত।অর্থ্যাৎ এটা ছিল বি২বি।বর্তমানে চার ধরনের ই কমার্স দেখা যায় ।যথা বিটুবি , বিটুসি,সি২সি,বি২জি।বিটুবি হচ্ছে বিজনেসঅম্যান টু বিজনেসম্যান অর্থ্যাৎ …

আরও পড়ুন

নিলান্দ্রী জানো ?

নিলান্দ্রী জানো? এদেশে টাকার বিনিময়ে ভার্সিটির সিট বিক্রি হয় মাস্টার্স পাশ করে চাকরি নিতে গেলে লক্ষ লক্ষ টাকা ঘুষ দিতে হয়। কিন্তু তুমি হায় গরীব ঘরের প্রত্যেকটা যুবতী যুবক হায় তুলে চাকরির অভাবে। ঘুষের টাকার অভাবে। কেউ বা হায় বাপদাদার সম্পত্তি বেঁচে দেয়। আর কেউ বা দেয় ঘরবাড়ি।দিন শেষে পড়ালেখার, ই বা কি কদর রইলো যেখানে স্বাধীন দেশে জন্মগ্রহণ করেও দিন শেষে অবোধ ঘুষখোরকে লক্ষ টাকা দিতে হয় ঘুষ নামের …

আরও পড়ুন

বাংলাদেশের বড় সমস্যা শিশুশ্রম

সারা বিশ্বের এখন ভয়ংকার পেশার নাম শিশু শ্রম। দিনে দিনে এই শ্রমের শ্রমিকের সংখ্যা বাড়ছে। বিভিন্ন এনজিও সংস্থা , সরকারসহ কাজ করে যাচ্ছে, আলোচনাও করছে কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। দুই বেলা অন্নের জন্য বাবা মায়েরা বাধ্য হয় তাদের সন্তানকে কাজে দিচ্ছে । বাধ্য হচ্ছে ঝুঁকির্পূণ কাজ করতে। একটি বড় সিন্ডিকেট শিশুদের ব্যবহার করছে। কিন্তু কেউই এদের নাম বলবে না কারণ সবারই জানের ভয় আছে। সারা দেশে প্রায় ৪৫ …

আরও পড়ুন
error: Content is protected !!